স্মার্ট মানিব্যাগ : পকেটমার নিয়ে গেলেও খোঁজ মিলবে অনায়াসে

স্মার্টফোন, স্মার্ট হাতঘড়ি আর কত গেজেটই না আসছে বাজারে। প্রযুক্তির এই যুগে সবকিছুই স্মার্ট করা হচ্ছে। তারই নমুনা দেখিয়ে দিল ‘উলেট ২.০’। এটা একটা স্মার্ট ওয়ালেট বা মানিব্যাগ। এতে রাখতে পারবেন পয়সা, ক্রেডিট কার্ড ও কাগজ-পত্র। এখন স্মার্ট ওয়ালেট হিসাবে এর বৈশিষ্ট্য কি? পকেটমার আপনার মানিব্যাগটি চুরি করে কিছুই করতে পারবে না। এটাকে খুঁজে বের করতে পারবেন। কারণ রয়েছে ট্র্যাকিং ডিভাইস। আপনার হাতছাড়া হলেও মানিব্যাগটি তার অবস্থান নিয়ে নোটিফিকেশন পাঠাবে। বিষয়টি কিন্তু দারুণ! মানিব্যাগ হারানোর ভয় থাকলেও খুঁজে পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত। উলেট ২.০ এর দুটো সংস্করণ রয়েছে। প্রতিটায় একই ধরনের ফিচার রয়েছে। আছে একটি ব্লুটুথ এলই রেডিও, একটি ছয় মাসের ব্যাটারি, কিউআই ওয়্যারলেস চার্জিং এবং বিল্ট-ইন স্পিকার। এই স্পিকার ৯০ ডেসিবল পর্যন্ত তীক্ষ্ণ শব্দ সৃষ্টি করতে সক্ষম। এসব যন্ত্রপাতি মানিব্যাগের ভেতরে সেলাই করে পুরে দেওয়া হয়েছে। কাজেই কেউ দেখে বুঝবেই না এটা স্মার্ট ওয়ালেট। আসল চামড়া নিয়ে হাতে বানানো হয়েছে দুই ধরনের ওয়ালেট। ক্রেতাদের অর্ডার নিতে প্রস্তুত। এর সঙ্গে রয়েছে একটি পিন যা কিনা ২৪ ক্যারেটের স্বর্ণ। এই স্বর্ণের মানও সার্টিফিকেটপ্রাপ্ত। এটা জেনে মনে হবে পারে ওয়ালেটটি কেবল ধনীদের জন্যই তৈরি হয়েছে। আসলে তা কিন্তু মোটেও নয়। সাধারণ উলেট ২.০ এর দাম ধরা হয়েছে ১২৯ ডলার। আর উলেট ট্র্যাভেল এক্সএল ২.০ এর দাম ১৪৯ ডলার। নরম চামড়ার মানিব্যাগটি সত্যিই অনন্য। কিউআই এর সঙ্গে উপযুক্ত যেকোনো চার্জারের মাধ্যমে উলেট ২.০ চার্জ করা যাবে। তা ছাড়া যে ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে তা ৬ মাস পর্যন্ত চলবে। চার্জারের দাম ৮৯ ডলার। উলেট ট্র্যাভেল এক্সএল ২.০ আকারে বড়। এতে রাখা যাবে ৬টি ক্রেডিট কার্ড। পাসপোর্ট রাখারও জায়গা রয়েছে এতে।  সূত্র : নেক্সট ওয়েব